March 29, 2023
Blog

বিখ্যাত 15টি হুমায়ুন আহমেদের গান ও গানের কথা

হুমায়ুন আহমেদের গান - humayun ahmed songs

হুমায়ুন আহমেদের গান: কথা ও শব্দের জাদুকর হুমায়ুন আহমেদ নির্মাণ করেছেন কিছু কালজয়ী ও জনপ্রিয় গান।

বাংলা সাহিত্যঙ্গনের ধ্রুবতারা হুমায়ুন আহমেদ যিনি একাধারে ঔপন্যাসিক, ছোট গল্পকার, নাট্যকার, পরিচালক এবং গীতিকার। আধুনিক বাংলা কল্প বিজ্ঞান সাহিত্যেরও তিনি পথিকৃৎ।

হুমায়ুন আহমেদের গান ও গানের কথাঃ

1. যদি মন কাঁদে তুমি চলে এসো….

গীতিকার: হুমায়ুন আহমেদ, সুরকার ও সঙ্গীতায়োজন: এস আই টুটুল, কণ্ঠশিল্পী: মেহের আফরোজ শাওন, চলচ্চিত্র: কৃষ্ণপক্ষ (2016) । গানটির জন্য মেহের আফরোজ শাওন 81তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছিলেন।

যদি মন কাঁদে
তুমি চলে এসো, চলে এসো
এক বরষায়… (।।)

এসো ঝর ঝর বৃষ্টিতে
জল ভরা দৃষ্টিতে
এসো কোমল শ্যামল ছায় ।

যদিও তখন আকাশ থাকবে বৈরি
কদম গুচ্ছ হাতে নিয়ে আমি তৈরি ।।
উতলা আকাশ মেঘে মেঘে হবে কালো
ছলকে ছলকে নাচিবে বিজলী আরো
তুমি চলে এসো, চলে এসো
এক বরষায়… (।।)

নামিবে আঁধার বেলা ফুরাবার ক্ষণে
মেঘ মাল্লা বৃষ্টিরও মনে মনে ।।
কদম গুচ্ছ খোঁপায়ে জড়ায়ে দিয়ে
জল ভরা মাঠে নাচিব তোমায় নিয়ে
তুমি চলে এসো, চলে এসো
এক বরষায়…(।।)

যদি মন কাঁদে
তুমি চলে এসো, চলে এসো
এক বরষায়… (।।)

2. চাঁদনী পসরে কে আমারে স্মরণ করে..

গীতিকার: হুমায়ুন আহমেদ, সুর-সংগীত: মাকসুদ জামিল মিন্টু, কণ্ঠশিল্পী: সেলিম চৌধুরী, চলচ্চিত্র: চন্দ্রকথা (2003)।

চাঁদনী পসরে কে আমারে স্মরণ করে
কে আইসা দাড়াইসে গো আমার দুয়ারে।

তাহারে চিনিনা আমি সে আমারে চিনে।।

বাহিরে চাঁন্দের আলো ঘর অন্ধকার
খুলিয়া দিয়াছি ঘরের সকল দুয়ার।

তবু কেন সে আমার ঘরে আসেনা
সে আমারে চিনে কিন্তু আমি চিনিনা।।

সে আমারে ঠারে ঠারে ইশারায় কয়
এই চাঁদের রাইতে তোমার হইছে গো সময়।

ঘর ছাড়িয়া বাহির হও ধরো আমার হাত
তোমার জন্য আনছি গো আইজ চাঁন্দেরও দাওয়া।।

3. বরষার প্রথম দিনে….

গীতিকার: হুমায়ুন আহমেদ, সুর-সংগীত: মাকসুদ জামিল মিন্টু, কণ্ঠশিল্পী: সাবিনা ইয়াসমিন, চলচ্চিত্র: দুই দুয়ারী (2000)। গানটির জন্য সাবিনা ইয়াসমিন 25তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে সেরা গায়িকার পুরস্কার পেয়েছিলেন।

বরষার প্রথম দিনে ঘন কালো মেঘ দেখে
আনন্দে যদি কাঁপে তোমার হৃদয়
সেদিন তাহার সাথে করো পরিচয়
কাছে কাছে থেকেও যে কভু কাছে নয়
বরষার প্রথম দিনে..

জীবনের সব ভুল যদি ফুল হয়ে যায় (2)
যদি কোনো দিন আসে জোছোনার আঁচলে ঢাকা
মধুর সময়
তখন কাছে এসো, তাহাকে ভালোবেসো
সেদিন তাহার সাথে করো পরিচয়
কাছে কাছে থেকেও যে কভু কাছে নয়
বরষার প্রথম দিনে

জীবনের সব কালো যদি আলো হয়ে যায় (2)
দূর হয়ে যায় যদি ছায়াদের আঁধার সময়
তখন কাছে এসো, তাহাকে ভালোবেসো
ছায়াময়ি কারো সাথে করো পরিচয়

কাছে কাছে থেকেও যে কভু কাছে নয়
বরষার প্রথম দিনে ঘন কালো মেঘ দেখে
আনন্দে যদি কাঁপে তোমার হৃদয়
সেদিন তাহার সাথে করো পরিচয়
কাছে কাছে থেকেও যে কভু কাছে নয়
বরষার প্রথম দিনে (3)

4. আমার ভাঙা ঘরে ভাঙা চালা….

গীতিকার: হুমায়ুন আহমেদ, সুর-সংগীত: মাকসুদ জামিল মিন্ট, কণ্ঠশিল্পী: সাবিনা ইয়াসমিন, চলচ্চিত্র: শ্রাবন মেঘের দিন (1999)।

আমার ভাঙা ঘরে ভাঙা চালা, ভাঙা বেড়ার ফাঁকে
অবাক জোছনা ঢুইকা পড়ে, হাত বাড়াইয়া ডাকে
হাত ইশারায় ডাকে কিন্তু মুখে বলে না
আমার কাছে আইলে বন্ধু আমারে পাইবা না

আমার ভাঙা ঘরে ভাঙা চালা, ভাঙা বেড়ার ফাঁকে
অবাক জোছনা ঢুইকা পড়ে, হাত বাড়াইয়া ডাকে

তুমি আমায় ডাকলা না গো, তুমি রইলা দূরে (2)
তোমার হইয়া অবাক জোছনা ডাকলো অচিন সুরে
হাত ইশারায় ডাকে কিন্তু মুখে বলে না
আমার কাছে আইলে বন্ধু আমারে পাইবা না
আমার ভাঙা ঘরে ভাঙা চালা, ভাঙা বেড়ার ফাঁকে
অবাক জোছনা ঢুইকা পড়ে, হাত বাড়াইয়া ডাকে

ঘর খুলিয়া বাহির হইয়া জোছনা ধরতে যাই (2)
হাত-ভর্তি চান্দের আলো, ধরতে গেলে নাই
হাত ইশারায় ডাকে কিন্তু মুখে বলে না
আমার কাছে আইলে বন্ধু আমারে পাইবা না
আমার ভাঙা ঘরে ভাঙা চালা, ভাঙা বেড়ার ফাঁকে
অবাক জোছনা ঢুইকা পড়ে, হাত বাড়াইয়া ডাকে
আমায় হাত বাড়াইয়া ডাকে

5. একটা ছিল সোনার কন্যা….

গীতিকার: হুমায়ুন আহমেদ, সুর-সংগীত: মাকসুদ জামিল মিন্টু, কণ্ঠশিল্পী: সুবীর নন্দী, চলচ্চিত্র: শ্রাবন মেঘের দিন। গানটির জন্য সুবীর নন্দি 24তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে সেরা কণ্ঠশিল্পী হয়েছিলেন।

একটা ছিল সোনার কন্যা, মেঘবরণ কেশ
ভাটি অঞ্চলে ছিল সেই কন্যার দেশ
দুই চোখে তার আহা রে কি মায়া
নদীর জলে পড়লো কন্যার ছায়া
তাহার কথা বলি…
তাহার কথা বলতে বলতে নাও দৌড়াইয়া চলি (2)

কন্যার চিড়ল-বিরল চুল..
তাহার কেশে জবা ফুল (2)
সেই ফুল পানিতে ফেইলা
কন্যা করলো ভুল
কন্যা ভুল করিস না
ও কন্যা ভুল করিস না
আমি ভুল করা কন্যার লগে কথা বলবো না

একটা ছিল সোনার কন্যা, মেঘবরণ কেশ
ভাটি অঞ্চলে ছিল সেই কন্যার দেশ
দুই চোখে তার আহা রে কি মায়া
নদীর জলে পড়লো কন্যার ছায়া
হাত খালি, গলা খালি..
কন্যার নাকে নাকফুল (2)
সেই ফুল পানিতে ফেইলা
কন্যা করলো ভুল
কন্যা ভুল করিস না
ও কন্যা ভুল করিস না
আমি ভুল করা কন্যার লগে কথা বলবো না
একটা ছিল সোনার কন্যা, মেঘবরণ কেশ
ভাটি অঞ্চলে ছিল সেই কন্যার দেশ
দুই চোখে তার আহা রে কি মায়া
নদীর জলে পড়লো কন্যার ছায়া
কন্যা ভুল করিস না
ও কন্যা ভুল করিস না
আমি ভুল করা কন্যার লগে কথা বলবো না
এখন নিজের কথা বলি
নিজের কথা বলতে বলতে নাও দৌড়াইয়া চলি
এখন নিজের কথা বলি
নিজের কথা বলতে বলতে নাও দৌড়াইয়া চলি
সবুজবরণ লাউ ডগায় দুধসাদা ফুল ধরে
ভুল করা কন্যার লাগি মন আনচান করে
সবুজবরণ লাউ ডগায় দুধসাদা ফুল ধরে
ভুল করা কন্যার লাগি মন আনচান করে
আমার মন আনচান করে..
আমার মন (4)

6. ও আমার উড়াল পঙ্খীরে….

গীতিকার: হুমায়ুন আহমেদ, সুরকার: হুমায়ুন আহমেদ, কণ্ঠশিল্পী: সুবীর নন্দী, চলচ্চিত্র: চন্দ্রকথা (2003)।

ও আমার উড়াল পঙ্খী রে
যা যা তুই উড়াল দিয়া যা
আমি থাকব মাটির ঘরে,
আমার চোক্ষে বৃষ্টি পড়ে
তোর হইবে মেঘের উপরে বাসা।

ও, আমার মনে বেজায় কষ্ট
সেই কষ্ট ইইল পষ্ট
দুই চোক্ষে ভর করিল আঁধার নিরাশা
তোর হইল মেঘের উপরে বাসা

ও আমার উড়াল পঙ্খী রে..

মেঘবতী মেঘকুমারী মেঘের উপরে থাক
সুখ দু:খ দুই বইনেরে কোলের উপরে রাখ
মাঝে মইধ্যে কান্দন করা মাঝে মইধ্যে হাসা
মেঘবতী আজ নিয়াছে মেঘের উপরে বাসা।

ও আমার উড়াল পঙ্খী রে
যা যা তুই উড়াল দিয়া যা
আমি থাকব মাটির ঘরে
আমার চোক্ষে বৃষ্টি পড়ে,
তোর হইবে মেঘের উপরে বাসা

7. মাথায় পরেছি সাদা ক্যাপ…

গীতিকার: হুমায়ুন আহমেদ, সুর-সংগীত: মাকসুদ জামিল মিন্টু, কণ্ঠশিল্পী: আগুন, চলচ্চিত্র: দুই দুয়ারী (2000)।

মাথায় পরেছি সাদা ক্যাপ
হাতে আছে অচেনা এক শহরের ও ম্যাপ।
মাথায় পরেছি সাদা ক্যাপ
হাতে আছে অচেনা এক শহরের ও ম্যাপ।

ব্যাগ ঝুলিয়েছি কাঁধে
নামবো রাজপথে,
চারিদিকে ঝলমলে রোদ
কেটে যাবে আঁধারেরই ছায়া-অবরোধ।
চারিদিকে কী আনন্দ,
অতি তুচ্ছ পতঙ্গেরও অপূর্ব জীবন।
হয়তো শিশির কণারও আছে
শুধু তার একান্ত-একা
আনন্দেরই ক্ষণ।

ও ও ও ও ও…
মাথায় পরেছি সাদা ক্যাপ
হা হা…
হাতে আছে অচেনা এক শহরের ম্যাপ।
আমি বলি, এই যে ব্রাদার হ্যালো
আমি কে? এইটুকু আমাকে শুধু বলো।
কোত্থেকে এসেছি আমি, ঠিকানাটা কী
এই জীবনে কী দেখেছি, কী দেখিনি।
দেখেছি মায়াময় দুই দুয়ারী ঘর
সেইখানে বাস করে অশ্রু কারিগর।
তাকে ঘিরে টলমল করে
নীলমণি দুঃখ সাগর।
দুই দুয়ার, খুলে দাও ভাই
অশ্রুর অবসান চাই।

নিয়ে এসো, চারদিকে ঝলমলে রোদ
কেটে যাক আঁধারের ও ছায়া-অবরোধ।
মাথায় পরেছি সাদা ক্যাপ
হাতে আছে অচেনা এক শহরের ম্যাপ।
ব্যাগ ঝুলিয়েছি কাঁধে
নামবো রাজপথে,
চারিদিকে ঝলমলে রোদ
কেটে যাবে আঁধারেরই ছায়া-অবরোধ।

চারিদিকে কী আনন্দ,
অতি তুচ্ছ পতঙ্গেরও অপূর্ব জীবন।
হয়তো শিশির কণারও আছে
শুধু তার একান্ত-একা
আনন্দেরই ক্ষণ।
ও ও ও ও ও…
মাথায় পরেছি সাদা ক্যাপ
হাতে আছে অচেনা এক শহরের ও ম্যাপ।

130+ Best Humayun Ahmed Quotes | হুমায়ুন আহমেদ এর উক্তি

8. আমার আছে জল….

গীতিকার: হুমায়ুন আহমেদ, সুর-সংগীত: হাবিব ওয়াহিদ, কণ্ঠশিল্পী: মেহের আফরোজ শাওন, চলচ্চিত্র: আমার আছে চল (2008)।

আমার আছে জল , আমার আছে জল
আমার আছে জল , আমার আছে জল
সেই জলে যেনো পদ্ম পুকুর
মেঘলা আকাশে মধ্য দুপুর(২)
অচেনা এক বন বাঁশি সুর
বিষাদে কোমল

আমার আছে জল , আমার আছে জল
আমার আছে জল , আমার আছে জল(২)

আমার একা সেই কালো দিঘি
একাই আমি জলে নামি
আর কেউ নেই তো কাছে ও দূরে
অন্য ভুবনে থাকো তুমি
আমার একার সেই দীঘিতে ফোটাই নীলকমল

আমার আছে জল , আমার আছে জল
আমার আছে জল , আমার আছে জল

ঝুম বরষা ঘন কালো মেঘে
উল্লাসে নাচি একা আমি
কেউ নেই পাশে মেঘে বৃষ্টিতে
ভিন গ্রহবাসি আজ তুমি
আমার একার জলত সবই শুধু অস্রুজল

আমার আছে জল , আমার আছে জল
আমার আছে জল , আমার আছে জল(২)

9. ও কারিগর দয়ার সাগর ওগো দয়াময়….

গীতিকার: হুমায়ুন আহমেদ, সুরকার: এসআই টুটুল, কণ্ঠশিল্পী: এসআই টুটুল

ও কারিগর, দয়ার সাগর, ওগো দয়াময়
চান্নি পসর রাইতে যেন আমার মরণ হয়।

চান্নি পসর চান্নি পসর আহারে আলো
কে বেসেছে কে বেসেছে তাহারে ভালো
কে দিয়েছে নিশি রাইতে দুধের চাদর গায়
কে খেলেছে চন্দ্র খেলা ধবল ছায়ায়

এখন খেলা থেমে গেছে মুছে গেছে রং
অনেক দূরে বাজছে ঘণ্টা ঢং ঢং ঢং
এখন যাব অচিন দেশে, অচিন কোন গায়
চন্দ্রকারিগরের কাছে ধবল পঙ্খী নায়

ও কারিগর, দয়ার সাগর, ওগো দয়াময়
চান্নি পসর রাইতে যেন আমার মরণ হয়।

10. বাজে বংশী….

গীতিকার: হুমায়ুন আহমেদ, সুর-সংগীত: মাকসুদ জামিল মিন্টু, কণ্ঠশিল্পী: শফি মণ্ডল ও ফজলুর রহমান বাবু, চলচ্চিত্র: ঘেটুপুত্র কমলা (2012)।

বাজে বংশী
বাজে বংশী রাজহংসী নাচে দুলিয়া দুলিয়া
নাচে পেখমও মেলিয়া
বাজে বংশী রাজহংসী নাচে দুলিয়া দুলিয়া
নাচে পেখমও মেলিয়া
রাজহংসী নাচে
ঝুমুর ঝুমুর ঝুম্
বাজে বংশী রাজহংসী নাচে দুলিয়া দুলিয়া
নাচে পেখমও মেলিয়া
বাজে বংশী

রাজহংসীর চোখ কালো
তারে দেখে লাগলো ভালো
সে বিহনে জগৎ কালো সবই অন্ধকার(২)
তার নাচে ভূবণ নাচে আহা! কি বাহার।
তার নাচে ভূবণ নাচে আহা! কি বাহার।
ঝুমুর ঝুমুর ঝুমুর ঝুমুর
ঝুমুর ঝুমুর ঝুম্
বাজে বংশী রাজহংসী নাচে দুলিয়া দুলিয়া
নাচে পেখমও মেলিয়া
বাজে বংশী

তারে তুমি কইয়ো গিয়া বিষ্যুতবারে তাহার বিয়া
আমরা যাবো পানসী নিয়া শনির হাওর পাড়ি দিয়া(২)
বাদ্য বাজনার ধুম তাকধুমাধুম ধুম
বাদ্য বাজনার ধুম তাকধুমাধুম ধুম
ঝুমুর ঝুমুর ঝুমুর ঝুমুর
ঝুমুর ঝুমুর ঝুম্……

11. লিলুয়া বাতাস…..

গীতিকার: হুমায়ুন আহমেদ, সুর-সংগীত: আইয়ুব বাচ্চু, কণ্ঠশিল্পী: রুনা লায়লা, এন্ড্রু কিশোর, কুমার বিশ্বজিৎ ও আখিঁ আলমগীর, চলচ্চিত্র: এক কাপ চা (2014)।

12. বাদলা দিনে মনে পড়ে ছেলেবেলার গান….

গীতিকার: হুমায়ুন আহমেদ, কণ্ঠশিল্পী: হাবিব ওয়াহিদ, চলচ্চিত্র: আমার আছে জল (2008)।

বাদলা দিনে মনে পড়ে ছেলেবেলার গান
বৃষ্টি পড়ে টাপুর টুপুর নদে এলো বান

যদি ডেকে বলি, এসো হাত ধরো
চলো ভিজি আজ বৃষ্টিতে
এসো গান করি মেঘ মল্লারে
করুনাধারা দৃষ্টিতে
আসবে না তুমি; জানি আমি জানি
অকারনে তবু কেন কাছে ডাকি
কেন মরে যাই তৃষ্ণাতে
এইই এসো না চলো জলে ভিজি
শ্রাবণ রাতের বৃষ্টিতে

কত না প্রণয়, ভালোবাসাবাসি
অশ্রু সজল কত হাসাহাসি
চোখে চোখ রাখা জলছবি আঁকা
বকুল কোন ধাগাতে
কাছে থেকেও তুমি কত দূরে
আমি মরে যাই তৃষ্ণাতে
চলো ভিজি আজ বৃষ্টিতে

যদি ডেকে বলি, এসো হাত ধরো
চলো ভিজি আজ বৃষ্টিতে
এসো গান করি মেঘো মল্লারে
করুনাধারা দৃষ্টিতে
আসবে না তুমি; জানি আমি জানি
অকারনে তবু কেন কাছে ডাকি
কেন মরে যাই তৃষ্ণাতে
এইই এসো না চলো জলে ভিজি
শ্রাবণ রাতের বৃষ্টিতে

বাদলা দিনে মনে পড়ে ছেলেবেলার গান
বৃষ্টি পড়ে টাপুর টুপুর নদে এলো বান

13. হাবলঙ্গের বাজারে গিয়া দশ টাকা জমা দিয়া…

গীতিকার: হুমায়ুন আহমেদ, সুর-সংগীত: মাকসুদ জামিল মিন্টু, কণ্ঠশিল্পী: সুবীর নন্দি, নাটক: হাবলঙ্গের বাজারে।

হাবলঙ্গের বাজারে গিয়া দশ টাকা জমা দিয়া
আনিয়ো কিনিয়া কন্যা মনে যদি চায়;
ও দরদি মনে যদি চায়… (২ বার)

মধ্যরাত্রি দি প্রহরে হাবলঙ্গের বাজার বসে,
যাইতে হবে চুপি চুপি, কথা হবে ঠারে ঠারে… (২)
যেন কেউ মুখের কথা শুনিতে না পায়;
কন্যা কিনিতে তোমার মনে যদি চায়…
ও দরদি মনে যদি চায়… হাবলঙ্গের বাজারে গিয়া দশ টাকা জমা দিয়া
আনিয়ো কিনিয়া কন্যা মনে যদি চায়;
ও দরদি মনে যদি চায়…

সাথে যদি আধুলি থাকে, মনে যদি ইচ্ছা থাকে,
আলতা কিনবা এক ফাকে, পিন্দাইবা কন্যার পায়;
হাবলঙ্গের কন্যারে সাজাইবা মনে যদি চায়…
কন্যা কিনিতে তোমার মনে যদি চায়,
ও দরদি মনে যদি চায়…

হাবলঙ্গের বাজারে গিয়া দশ টাকা জমা দিয়া
আনিয়ো কিনিয়া কন্যা মনে যদি চায়;
ও দরদি মনে যদি চায়…(২ বার)

14. নদির নামটি ময়ুরাক্ষী….

গীতিকার: হুমায়ুন আহমেদ, সুরকার: এসআই টুটুল, কণ্ঠশিল্পী: এস আই টুটুল, চলচ্চিত্র: আমার আছে জল (2008)।

নদীর নামটি ময়ূরাক্ষী কাক কালো তার জল
কোন ডুবুরি সেই নদীটির পায়নি খুজেঁ তল..
নদীর নামটি ময়ূরাক্ষী কাক কালো তার জল
কোন ডুবুরি সেই নদীটির পায়নি খুজেঁ তল ।

তুমি যাবে কি ময়ূরাক্ষীতে
হাতে হাত রেখে জলে নাওয়া..
যে ভালোবাসার রং জ্বলে গেছে
সেই রংটুকু খুজেঁ পাওয়া।
সখী কারে ভালোবাসা কারে কয়..
নদীর জলে ভালোবাসা খোজার কোন অর্থ কি হয়।

কণ্যা আমার কথা শোনো
নদীর প্রান্তরে বন জংগলে..ভালোবাসা নেই কোন ।
ভালোবাসা থাকে চোখের মাঝে
চোখে চোখে শুধু চাওয়া..
তাই চোখের জলে তোমার আমার
ভালোবাসা খুজেঁ পাওয়া।
সখী কারে ভালোবাসা কারে কয়..
নদীর জলে ভালোবাসা খোজাঁর কোন অর্থ কি হয়।

15. এই দুনিয়ায় সবাই গরীব…

গীতিকার: হুমায়ুন আহমেদ, কণ্ঠশিল্পী: বারী সিদ্দিকি। গানটি হুমায়ুন আহমেদ এর শেষ রচনা।

কেহ গরিব অর্থের জন্য
কেহ গরিব রূপে
এই দুনিয়ার সবাই গরিব
কান্দে চুপে চুপে

যে রাজার হাজার দুয়ার
লক্ষ কুঠুরি
তাহার ঘরেও বসত করে
অভাব নামের বুড়ি
রূপার খাটে বইসা বুড়ি
মজার মোয়া খায়
ধনে মান্য রাজার সনে
অভাব কিচ্ছা গায়

ধন আছে জ্ঞান নাই
জ্ঞানের অভাব
ভবের কারখানায় দেখবা
ইহাই স্বভাব
মূল কথা কত কথা
হিমু পাগলায় কয়
এই দুনিয়ায় সবাই গরিব
ধনবান কেউ নয়

কেহ গরিব অর্থের জন্য
কেহ গরিব রূপে
এই দুনিয়ার সবাই গরিব
কান্দে চুপে চুপে রে
কান্দে চুপে চুপে

সূত্র: দ্যা ডেইলি স্টার

0 0 votes
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest

0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x